আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে হযরত বুলাহ (রহ:) পীরের ওরস সম্পন্ন

জি এম মামুন নিজস্ব প্রতিনিধি

জি এম মামুন নিজস্ব প্রতিনিধি

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে কালিগঞ্জের বসন্তপুর দরবার শরীফের পীর হযরত বুলাহ্ সৈয়দ (রহঃ) এর বার্ষিক ওরশ শরীফ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে পীরের দরবার শরীফে তিন দিনব্যাপী ওরছ শরীফ উপলক্ষে রবিবার সকালে ফতেহা শরীফ, মিলাদ ও আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম, নাজিমগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি শেখ ফিরোজ কবির কাজল, মাদ্রাসা শিক্ষক ক্বারী মাওঃ আবু মুসা, হাফেজ মাওঃ মাহমুদুল হক, হাফেজ মাওঃ মাহবুবুর রহমান, মাওঃ আলমগীর কবির, স্থানীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওঃ আব্দুর রহমান, মাওঃ শহিদুল ইসলামসহ আলেম ওলামায়ে কেরামগন, দরবার কমিটির নেতৃবৃন্দ, পীর ভক্ত ও আশেকগন।

বার্ষিক ওরছ শরীফে দোয়া ও আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন পীর হযরত বুলাহ সৈয়দ (রহঃ) পাঞ্জেগানা মসজিদের ইমাম ও সকল অনুষ্ঠানের সভাপতি মৌলভী আব্দুল ওহাব। জনশ্র“তি আছে, কোন এক সময়ে ওলিকুল শিরোমণি পীর হযরত শাহ্জালাল (রহঃ) এর সাথে ৩৬০ জন আউলিয়া সুদূর আরব দেশ হতে এদেশে ইসলাম প্রচারে এসেছিলেন।

তার মধ্যে পীর হযরত বুলাহ্ সৈয়দ (রহঃ) দক্ষিণ খুলনার ভাটী অঞ্চলে আগমণ করে ইসলাম প্রচার করতেন। তৎকালীন সময়ে তিনি উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী কালান্দী ও কাঁকশিয়ালী নদীর তীরবর্তী বসন্তপুর গ্রামে আস্তানা গাড়েন। এখানে তিনি ওফাতপ্রাপ্ত হলে বর্তমান দরগা এলাকায় মরহুম পীরকে সমাহিত করা হয়। সেই থেকে প্রতি বছর বাংলা মাসের ১, ২ ও ৩ মাঘ পীরের স্মরণে দরবারে কোরআন খতম, ওয়াজ মাহফিল, দোয়া-দরুদ, জিকির-আসকার, মিলাদ-কিয়াম, দোয়া এবং মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

পীর হযরত বুলাহ্ সৈয়দ (রহঃ) মাজার শরীফ কমিটির সভাপতি চিকিৎসক আজিজুর রহমান ও সাঃ সম্পাদক রবিউল ইসলাম জানান, প্রতি বছর তিন দিনব্যাপী ওরছকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিপুল সংখ্যক পীর ভক্ত ও আশেকানদের সমাগম হতো। এলাকার প্রতিটি বাড়িতে আত্মীয় স্বজনদের উপস্থিতি থাকতো লক্ষণীয়। কিন্তু এ বছর বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুবই সীমিত আকারে পীরের ওরছ শরীফ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর লেখক থেকে আরও