মুন্সিগঞ্জ বুড়িগোয়ালিনীর আন্তঃ ইউনিয়ন সংযোগ উত্তর কদমতলার খাল দখলের হিড়িক।

গণ টিভি বুড়িগোয়ালিনী প্রতিনিধিঃ

মুন্সিগঞ্জ বুড়িগোয়ালিনীর আন্ত ইউনিয়ন সংযোগ খালটি দখলের হিড়িক পড়েছে, মুন্সিগঞ্জ টু ঈশ্বরীপুর পর্যন্ত কাল প্রায় দখলদারের হাতে পৌঁছে গেছে। যে খাল টি মুন্সীগঞ্জ বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নেরর পানি সরবরাহের একটি খাল। যে খালটির প্রস্ত ছিল ১৩০ থেকে ১৭০ফুট সেই খাল দখল করতে করতে ১৫ থেকে ২০ ফুট বাকি আছে কেউবা ভিঠা করছে, কেউ কাল সাইট বাদ দিয়ে পুকুর কাটছে, এই অবস্থা চলতে থাকলে অত্র এলাকায় সাধারণ জনগণ হঠাৎ দুর্যোগে বা বুলবুলের মতো অবস্থা হলে নিঃসন্দেহে পানি বন্দি হয়ে পড়বে এমনই মন্তব্য করছিলেন অত্র এলাকার সচেতন মহল।

এই অঞ্চল দিয়ে বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের আবাদ চন্ডিপুর খোশাল খালি পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা। মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা। এই কদম তলার খাল দিয়ে ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের খাগড়াঘাট, গুমানতলী সহ অত্র এলাকার একটাই পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা এই একমাত্র কদমতলার খাল দিয়ে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সরজমিনে দেখা যায়, খোশাল খালী মায়ের বাড়ি সম্মুখে দখলের কাজ চলছে। মৃত মাওলানা রফিকুল সাহেবের বাড়ি সংলগ্ন দখল বাজরা
খাল দখলের মর্ত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগর উপজেলা সহকারি কমিশনার ( ভূমি) জনাব আব্দুল হাই সিদ্দিকী ওনার উপস্থিতি টের পেয়ে দখল বাজরা সুকৌশলে পালিয়ে যায়। উপস্থিত জনগণের সামনে তিনি বলেন, সরকারি জায়গার উপরে এহেন অনৈতিক কর্মকাণ্ড কোনদিন বরদাশ্ত করা যাবে না। তিনি আরো বলেন স্ব-স্ব কাগজপত্র নিয়ে শ্যামনগর উপজেলা ভূমি অফিসে যেন দেখা করেন।

এমন নির্দেশ দেন ৯ নং বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জি এম আব্দুর রশিদ কে আর যতদিন এর কাগজপত্র না দেখাতে পারবে ততদিন পর্যন্ত উত্তর কদমতলা সরকারি খালে কেউ কোন কর্ম করতে পারবে না এমনি নির্দেশ দেন শ্যামনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার( ভূমি) জনাব আব্দুল হাই সিদ্দিকী।

You might also like More from author